একটি মুক্ত
পাঠচক্র আন্দোলন

ফিচার

প্রিয় সুকুমার

টিক্ টিক্ চলে ঘড়ি,টিক্ টিক্ টিক্, একটা ইঁদুর এল সে সময়ে ঠিক। ঘড়ি দেখে একলাফে তাহাতে চড়িল, টং করে অমনি ঘড়ি বাজিয়া উঠিল...

কবিতার লাইনগুলো শুধুমাত্র শিশুদের কাছেই প্রিয় তা বললে নেহায়েৎ ই ভুল বলা হবে এমন ভাবগাম্ভীর্য বিহীন কবিতা ছোটদের পাশাপাশি বড়দের কাছেও ভালো লাগার ও ভালোবাসার। কেননা সহজ,সরল, হাস্যরসে ভরা অনেক সাধারণ কথা ধারণ করে অনেক বড় বিষয়।এমন সব কবিতা জীবনের প্রাণচ্ছোলতার উপাদান যেমন তেমনি সুকুমার বৃত্তি গড়ে তোলার ও উপাদান ।

আর টিক্ টিক্ টং,খাই খাই,সৎ পাত্র,কিছু চাই,নাচের বাতিক এমন আরো সহজ সরল কল্পনামিশ্রিত হাস্যরসে ভরপুর অথচ শিশুর সুকুমার বৃত্তির জন্য ভীষণ প্রয়োজনীয় কবিতার জনক যিনি তিনি কবি সুকুমার রায়। তাই সুকুমার বৃত্তি এবং সুকুমার রায় শব্দ দুটি ওতোপ্রতোভাবে জড়িয়ে আছে বলা যায়। কিংবা এটিও বলা যায় যে সব যুগের সব মানুষের প্রাণচ্ছোলতার প্রতীক সুকুমার রায়।তবে যদি বলা হয় শুধুমাত্র কবি সুকুমার রায় তবে তা ভুল হবে। ঊনবিংশ শতাব্দীতে বাঙালি বর পেয়েছিল আর সে বর হিসেবেই জন্মেছিলেন সুকুমার রায় যিনি তাঁর মাত্র ৩৬ বছরের জীবনে লিখে গেছেন অসংখ্য কবিতা,গল্প,জীবনী। অভিনয়,গান, ছবি আঁকাতেও তিনি ছিলেন দক্ষ। এই মহান ব্যক্তির জন্ম ১৮৮৭ খ্রিষ্টাবদে,বাংলা ১২৯৪ সালের ১৩ কার্তিক। তাঁর বাবা উপেন্দ্রকিশোর রায় চৌধুরী ছিলেন শিশুতোষ সাহিত্যিক হিসেবে সুখ্যাত। সে থেকে বলা যায় সুকুমার রায় ছিলেন বংশপরম্পরায় লেখক।সুকুমার রায় ছিলেন বহু গুণে গুণান্বিত। শিক্ষাজীবনে কোলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তিনি গুরুপ্রসন্ন ঘোষ বৃত্তি লাভ করে লন্ডনে যান। লন্ডনের ম্যানচেস্টার শিল্প কলেজে ফোটোগ্রাফি এবং ফোটোগ্রাফিক বিষয়ে শিক্ষা গ্রহণ করে তিনি সেক্ষেত্রেও গবেষণা করে রেখেছিলেন স্বকীয় অবদান। তার সবচেয়ে বড় গুণ ছিল এই যে হাস্যরসের মধ্য দিয়ে কবিতা, গল্পে তিনি প্রকাশ করেছেন সত্যের কথা,জাগিয়েছেন বিজ্ঞান বোধ, স্পষ্ট ভাবে দেখিয়েছেন নানা সামাজিক সমস্যা। সুকুমার রায় এর গল্পের বিখ্যাত চরিত্র দাশু পাগলা,ভব দুলাল তো সত্য ও সুন্দরের প্রকাশ মাত্র। আর তাই সমাজে সুন্দর ও সত্যের বিকাশ ঘটানোর জন্য সুকুমার এর রচনাবলী সব যুগেই উপযুক্ত এবং আদর্শ স্বরূপ। সুকুমার রায় ছিলেন দুটি চরিত্রের মিশ্রণ। সকল ক্ষেত্রে হাস্যরস এর স্রষ্টা যেমন ছিলেন তিনি আবার এর ই মধ্য দিয়ে ছিলেন প্রতিবাদী। সমাজের জন্য এমন ব্যক্তি সব যুগেই জরুরী। তাই বর্তমান এর আমাদের যেমন সুকুমার এর রচনা অপরিহার্য তেমনি ভবিষ্যতের শিশুর পরম বন্ধু যেন হয় সুকুমার রচনাবলী।

লেখকঃ তাসনিম জাহান তাজিন
সংগঠক, হিমু পরিবহন কিশোরগঞ্জ 

কাকাড্ডার ডাকবাক্স

কাকাড্ডা ডট কমে সাবস্ক্রাইব করলে মেইলের মাধ্যমে আমাদের সব আপডেট পাবেন

kakadda logo

ঠিকানা:
আলোরমেলা, কিশোরগঞ্জ- ২৩০০।
সেন্ট্রাল রোড, ধানমন্ডি, ঢাকা - ১২০৯।

ইমেইল:
info@kakadda.com
k
akadda.info@gmail.com

ফোন:
+8801859 304232
+8801971 104077

স্যোশাল লিঙ্কস