অরিগ্যামি

অরিগ্যামি আমাদের অনেকের কাছে এক অপরিচিত নাম।তবে তোমাদের সামনে এর পরিচয় তুলে ধরলে তোমাদের বুঝতে সুবিধা হবে। অরিগ্যামি হল একটি জাপানিজ আর্ট যেখানে একটি সাধারন কাগজ ভাজ করার মাধ্যমে আমরা নতুন কিছুর আকার দিতে পারি। এখন হয়তো তোমরা কিছুটা মনে করতে পারছ। ছোটোবেলায় আমরা কাগজ দিয়ে নৌকা, প্লেন, ফুল, পাখি ইত্যাদি তৈরি করতাম। এগুলি হল অরিগ্যামি এর উদাহরণ। কোনো আঠা ব্যবহার না করে শুধু ভাজ করে আকার দেওয়ার নামই হল অরিগ্যামি। তবে, অরিগ্যামি এতটুকুতেই পরে নেই। বর্তমানে অরিগ্যামি কে কেন্দ্র করে গড়ে উঠে এসেছে বিশাল এক শিল্পসমাজ। এমনকি জাপান এ অরিগ্যামি নিয়ে রিসার্চ করার জন্য রয়েছে বেশ কিছু প্রতিষ্ঠান যেখানে ডিজাইন নিয়ে গবেষণা করা হয়। কিন্তু আমরা যারা শখের বশে অরিগ্যামি করে থাকি তাদের জন্য এত কিছু না জানলেও চলবে।

অরিগ্যামি মানে কিন্তু শুধু কাগজ ভাজ করাই নয়, তা দিয়ে অর্থবহ কিছু তৈরি করা। কোন কাটাকাটি না করে শুধু ভাজ করে কোন কিছুর আকার দেওয়ার নাম-ই অরিগ্যামি। এর জন্য আসলে তেমন কিছুর দরকার ও হয় নাহ। শুধু একটি কাগজ আর অরিগ্যামি নিয়ে নূন্যতম জ্ঞান থাকলে নতুন কিছু তৈরি করা সম্ভব। আর চাই শেখার অনেক অনেক আগ্রহ এবং ধৈর্য। অরিগ্যামি করে প্লেন, ফুল, পাখি, প্রাণী, বিল্ডিং, গাছ, মাছ থেকে শুরু করে কাল্পনিক অনেক কিছুর আকার এ দেওয়া যায়। শুধু দরকার একটি কাগজ এবং অনেক অনেক ইচ্ছে এবং আগ্রহ।

প্রতি দেশে এ অরিগ্যামি এক এক রকম ভাবে বেড়ে উঠে। ভিন্ন দেশ এর অরিগ্যামি তে ফুটে ওঠে ওই দেশ এর সংস্কৃতি। জাপান এ বাচ্চাদের অরিগামি শুরু হয় পাখি, ফুল তৈরি করার মাধ্যমে। আমাদের দেশ এ সাধারনত শুরু হয় নৌকা, প্লেন, ফুল দিয়ে। কাগজের প্লেন তৈরি করতে পারে নাহ এমন লোক খুব কমই পাওয়া যাবে। এই প্লেন দিয়ে আমাদের হাতেখড়ি হয় অরিগ্যামি এর। একটি সাধারণ কাগজ থেকে যখন আমরা প্রথম একটি ফুল বা পাখি বা নৌকা বানাই তখন আমাদের মধ্যে এক আশ্চর্যবোধের সৃষ্টি হয়। পরবর্তী তে যখন আবার পুনরায় তৈরি করা হয় তখন তা জন্ম দেয় আনন্দের আবেগ। নতুন কিছু তৈরি করার আনন্দ যে কি তা যে তৈরি করে সে ছাড়া কেউ বুঝবে নাহ। তবে পরবর্তীতে দিকনির্দেশনার অভাবে আমাদের অনেকের আর সামনে এগিয়ে যাওয়া হয় নাহ। যার কারনে আমাদের অনুশীলন এখানেই থেমে যায়। বর্তমানে প্রযুক্তিগত উন্নতির কারনে হারাতে বসেছে এই অরিগ্যামি। তবে ইচ্ছের কাছে হার মানে সব বাধা বিপত্তি। প্রযুক্তি কে ব্যবহার করে শেখা যাবে অরিগ্যামি। বর্তমানে অনেক ইন্টারনেট ওয়েবসাইট আছে যারা বিনামূল্যে অরিগ্যামি প্রশিক্ষণ দিয়ে থাকে। অন্যতম প্লাটফরম হল “ইউটিউব(youtube)”। এখানে বিনামূল্যে অনেক চ্যানেল থেকে শেখা যায় মজার মজার অরিগ্যামি। তবে শেখার জন্য চাই ধৈর্য এবং শেখার আগ্রহ। যত বেশি অনুশীলন করতে পারবে তত ভালো হবে। তোমাদের মধ্যে যাদের নতুন কিছু করার আগ্রহ আছে তারা অরিগ্যামি বানানোর চেষ্টা করতে পার। হয়ত এটা তোমাদের জন্য খুলে দেবে এক বিশাল আগ্রহের সম্ভার। তোমাদের মধ্যে যারা নতুন কিছু তৈরি করে আনন্দ পাও এবং যাদের ধৈর্য ধরে রাখার ক্ষমতা আছে তাদের জন্য অরিগ্যামি হয়ে উঠতে পারে শখের নতুন শিখা।

লেখকঃ তানভীর হাসান সাদ, শিক্ষার্থী, বুয়েট।

 9,926 total views,  4 views today

Leave a Comment