ছোট প্রাণ ছোট কথাঃ লুনা মথ

খায়রুল হাসান জাহীন

সবুজ পাতার ওপর তার উজ্জ্বল সবুজ পাখা মেলে বসে থাকে লুনা মথ। হঠাৎ করেই পাখা দুটিকে ছড়িয়ে দেয় মথটি। পোকাটি তার পাখাগুলোকে সাড়ে চার ইঞ্চির মত বড় করতে পারে যা কি না একটা ছোট্ট আইফোনের সমান দৈর্ঘ্যের!

সব সময়ই প্রচন্ড ক্ষুধার্ত থাকা শুয়োপোকা লুনা মথ পাওয়া যায় কেবল উত্তর আমেরিকাতেই। নতুন জন্ম নেয়া শুয়োপোকা গুলো আখরোট, গাছের মিষ্টি আঠা, বার্চ গাছের পাতা গেয়ে বড়সড় হয়ে ওঠে। একমাস ধরে গাছে বসবাসের পর শুয়োপোকা গুলো কোকুন তৈরী করে। প্রায় তিন সপ্তাহ এর ভেতরে থেকে মথ হিসেবে রূপান্তরিত হয়। সুন্দর পাখার জন্য একে সহজেই চেনা যায়। কিন্তু এই সুন্দর পাখাই লুনা মথের সবচেয়ে চমকপ্রদ বৈশিষ্ট্য না। ছোট্ট এই প্রাণীটির কোনো মুখ বা পাচনতন্ত্র নেই। কারণ কোকুন ছাড়ার পর এটি মাত্র এক সপ্তাহ বাঁচে। আর এই এক সপ্তাহে সে কখনোই খায় না।
ক্ষুধাপ্রবৃত্তিহীন জীব হওয়া সত্যেও বাঁদুরের প্রিয় খাবার এই লুনা মথ। বাঁদুরের হাত থেকে বাঁচতে লুনা মথ তার লেজকে গুটিয়ে ছোট বলের মত কুন্ডুলী পাকায়। এই কুন্ডলী বাঁদুরকে বিভ্রান্ত করে দেয় আর লুনা মথ তার ছোট্ট জীবনকালকে আরো কিছুটা দীর্ঘায়িত করার সুযোগ পায়!

• লুনা মথের বৈজ্ঞানিক নাম
Actius luna

• গণ
Saturniidae

 

  • ন্যাশনাল জিওগ্রাফি ম্যাগাজিন অবলম্বনে। 

Leave a Reply