গল্প

    আমি আর ফাইজা

    আপনার সাথে একটু গল্প করি?  আমি ছেলেটার দিকে তাকাই। ছেলে হবে নাকি তরুণ। বয়স ২৩ বছর। আমার বয়স ৩০। গাল ভর্তি চাপ দাঁড়ি থাকায় বয়স একটু বেশি দেখায়। তাছাড়া আমি

    কফিনের বাসিন্দাদের কথা

    একটা জরাজীর্ণ দালান, তার মাঝ বরাবর বিশাল একটা হলঘরে সারি সারি কফিন। একেকটা কফিনের ভেতর শত শত মানুষ। কিংবা কে জানে, হয়ত লাখ… কোটিও ছাড়াতে পারে। তাদের চোখে রঙিন চশমা,

    আত্নশুদ্ধি

    বেশ জোরেশোরে একটা বাতাসের ঝাপটা জানালায় লেগেই বৃষ্টি শুরু হয়ে গেলো।আমি ক্লাসে বসে আছি,১০১নাম্বার কোর্সের ক্লাস হচ্ছে।যে স্যার ক্লাস নিচ্ছেন তিনি হচ্ছেন ডিপার্টমেন্টের সবচেয়ে কঠোর এবং অসম্ভব সৎ মানুষ। জীবনে

    শহরের একটি হুল্লোড়ের গল্প

    যে লাল ইটের কোমরসমান ওয়ালের উপর আমি বসে আছি, তার পাশেই একটা ইস্পাতের ডাস্টবিন পাতা। সিটি করপোরেশনের এই উদ্যোগ বেশ প্রসংশনীয়। যদিও বেশিরভাগ ডাস্টবিন ই বসানোর কয়েকদিনের মাথায় উধাও হয়ে

    ধন্যবাদ, আবার আসবেন

      জুলাই মাসের এক রাতের বেলায় দেখা যায় মধ্যপাড়া এলাকাটা অপেক্ষাকৃত নীরব। বৃষ্টি হবে। অন্য কোনো দিন দৃশ্যটা ভিন্ন থাকে। আসলে মধ্যপাড়া এলাকাটা উন্মাদের মতো, পানির ছোঁয়া লাগলে পাগলামি বাড়ে।

    ছাদে উঠে গিয়ে

    হতাশায় চোখ মুখ ফুলে গেলে আমাকে বসন্ত-রোগীর মত দেখায়, আমি তখন কাল বসন্ত ছাল বসন্ত করতে করতে ছাদে উঠে গিয়ে লাফ দেই রাস্তা বরাবর।

    পিসি মা

    অন্ধকারে পুরনো লণ্ঠনের আলোয় মাঝি আর মতি মিয়ার মুখ ঝাপসা দেখতে পায় মিরাজ আলীর ছেলে। মাঝি নরসুন্দায় এসে চাদর খুলে মিষ্টি নারীকণ্ঠে গান ধরে, বনমালী গো….

    ভ্রান্তি

    বিনীতার ধারণা সে আস্তে আস্তে পাগল হয়ে যাচ্ছে৷ এমন অনেক কিছুই সে দেখতে পাচ্ছে, যার কোন অস্তিত্ব আসলে নেই৷ যেমন বিনীতার সামনে এখন যে ছেলেটি বসে আছে, যেমন বিনীতার সামনে এখন যে ছেলেটি বসে আছে, তার এখানে মোটেও বসে থাকার কথা নয়৷

    ক্লিক

    সম্পাদকীয়- আষাঢ় ১৪২৮

    কাকাড্ডার প্রচেষ্টার ছয় বছর পূর্ণ হবে আসছে আগস্টের ৭ তারিখে। এই ছয় বছরের প্রায় পুরোটা জুড়েই কাকাড্ডা নিয়ে চলেছে আমাদের নানা এক্সপেরিমেন্ট। ধীরে হলেও কাঙ্খিত উদ্দেশ্যে অর্থাৎ, সুন্দর, সাবলীল কৈশোরকালকে নিশ্চিত করতে নিজেদের সবটুকু দিয়েই এগিয়ে চলেছে কাকাড্ডা পাঠচক্র। এ সময়ের আর দশটি সংগঠনের সাথে কাকাড্ডার পার্থক্যের জায়গাটি হলো, আমরা যারা কাকাড্ডার কলা-কৌশলী আছি, তাদের কেউই জানি না আর ৫ বছর পরে কাকাড্ডা নামে সংগঠনটি আদৌ থাকবে কী না, এ নিয়ে আমাদের তেমন কোনো চিন্তাও নেই। কাকাড্ডার টিকে থাকা বা টিকে না থাকার চাইতে আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ হলো, যে উদ্দেশ্য নিয়ে কাকাড্ডা পাঠচক্র কাজ করে যাচ্ছে সে স্বপ্নের টিকে থাকাটা। যে স্বপ্নের ঝান্ডা আজ কাকাড্ডার কাছে আছে, তা আগামীদিনে অন্য কারোর হাতে যাবে এটাই স্বাভাবিক। আমাদের কাজ এই স্বপ্নের ঝান্ডাটাকে আরো দৃঢ় করে দেয়া, আরো শক্ত হাতের কাছে পৌঁছে দেয়া।

    লেখক-কলা কৌশলির অভাবে অনেকদিন বন্ধ ছিলো ওয়েবে কাকাড্ডার প্রকাশনা। এবারে তাই চেষ্টার কমতি রাখিনি আমরা। পুরো বর্ষাকাল জুড়েই নতুন কন্টেন্টে ভরপুর থাকবে কাকাড্ডা ডট কম। ভুল-ত্রুটি মুক্ত রাখার প্রাণান্ত চেষ্টাই আমরা করছি প্রতিনিয়ত। কাকাড্ডার পাঠকেরা ভুল গুলোকে ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন, এই আমাদের প্রত্যাশা।

    কাকাড্ডা ডট কমের সকল পাঠককে ইদের অগ্রীম শুভেচ্ছা।

    ফিচার

    সাফল্যের মানদণ্ড

    আন্দ্রে শার্লের লবড ক্রস, মারিও গোটশে বুক দিয়ে আলতো করে বলটা ঠেকিয়ে কোণাকুণি ভলিতে আর্জেন্টিনার জালে পাঠালেন। সময় থমকে যাওয়া একটা মুহূর্ত। জার্মানি বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন। ৭ বছর সামনে তাকান। গোটশে বায়ার্ন মিউনিখে পুরোপুরি ফ্লপড হয়ে দ্বিতীয়বারের মত ডর্টমুন্ড ঘুরে এখন

    ক্রিয়েশন মিথঃ অন্য আলোয় সৃষ্টতত্ত্ব (পর্ব-২)

    (প্রথম পর্বের পর) ওয়ার্ল্ড প্যারেন্ট মিথ দুইটি ভিন্ন সত্ত্বার মিলনের ফলে জন্ম নেয় আমাদের এই ইউনিভার্স, সংক্ষেপে এই হচ্ছে ওয়ার্ল্ড প্যারেন্ট। এতক্ষণ পর্যন্ত যেসব মিথ সম্পর্কে জানলাম, তাদের মধ্যে কমন প্যাটার্ন হলো, সব জায়গাতেই নারী অনুপস্থিত। এক সুপ্রিম পুরুষসত্ত্বা সকল

    ক্রিয়েশন মিথঃ অন্য আলোয় সৃষ্টতত্ত্ব (পর্ব-১)

    মিথ শব্দটা এসেছে গ্রীক ‘মিথোস’ থেকে যার অর্থ করলে দাঁড়ায় গল্প। আসলেও মিথ বলতে আমরা গল্পই বুঝি, রুপকথার গল্প, দেবদেবীদের গল্প, মহান সব হিরো, অ্যান্টিহিরো আর অসুরের গল্প। কিন্তু মিথ কি শুধুই গল্প? তাহলে ‘মিথোলজি’ বলে একে আলাদাভাবে সংজ্ঞায়িত করার

    ব্লাড ঈগলঃ নিষ্ঠুরতা যেখানে শিল্প

    নবম শতকের ইংল্যান্ড। দুর্ধর্ষ লুটেরা জলদস্যু ভাইকিংদের উৎপাতে অতিষ্ঠ অ্যাংলো স্যাক্সনরা। প্রতি গ্রীষ্মে নর্দার্ন ইংল্যান্ডের উপকূলে নোঙর করে ভাইকিংরা। হত্যা ধর্ষণ লুটপাট করে প্রচুর সম্পদ নিয়ে শীতের শুরুতে তারা বাড়ি ফেরে। এদের নেতৃত্ব দেন এক ভাইকিং বীর, রাগনার লথব্রোক। ধনসম্পদে

    প্রিয় লেখা