সত্যবাদী মামাদ

সুলতানা রাজিয়া কণিকা

অনেক বছর আগে আফ্রিকার এক রাজ্যে মামাদ নামে একজন বুদ্ধিমান ব্যক্তি ছিলেন। তিনি কখনও মিথ্যা বলতেন না। রাজ্যের সব মানুষ তাকে খুব জানতো। সে রাজ্যের রাজা যখন মামাদের সম্পর্কে জানলেন তখনই  তাঁর সেপাইদের আদেশ দিলেন তাঁকে নিয়ে আ্সার জন্য। তিনি জ্ঞানী মানুষটির দিকে তাকিয়ে জিজ্ঞাসা করলেন, “মামাদ , এটা কি সত্যি, আপনি কখনো মিথ্যা বলনি?”
-এটা সত্যি।
-এবং আপনি আপনার জীবনে কখনও বলবেন না ?
-আমি এ সম্পর্কে নিশ্চিত ।
-ঠিক আছে, সত্য বলুন, কিন্তু সাবধানে থাকবেন! মিথ্যা খুব ধূর্ত এবং এটি সহজেই আপনার জিহবায় এসে পড়তে পারে।

বেশ কয়েক দিন পার হয়ে যাওয়ার পর রাজা আবার তাঁকে ডাকলেন। সেখানে একটি বড় ভিড় ছিল। রাজা শিকারে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। তিনি মামাদকে আদেশ দেন-
“আমার গ্রীষ্মকালীন প্রাসাদে যান এবং রাণীকে বলুন যে আমি তার সাথে দুপুরের খাবারের জন্য আসছি। ভালো করে রান্না প্রস্তুত করার জন্য তাকে বলে আসুন। আমি আগামীকাল তার সাথে দুপুরে খাবার খাবো।”

মামাদ চলে যাবার পর রাজা হেসে বললেন: “আমরা আসলে শিকারে যাবো না এবং এখন এতে করে মামাদ রাণীর কাছে মিথ্যা বলবেন। আগামীকাল আমরা তাঁর এই ব্যাপারে হাসবো।”
কিন্তু জ্ঞানী মামাদ প্রাসাদে গিয়ে রানীকে বললেন, “আপনি হয়তো আগামীকাল দুপুরের জন্য একটি বড় রান্নার আয়োজন  করবেন, সম্ভবত তা আপনার উচিত নাও হতে পারে । কারণ রাজা দুপুরে আসতেও পারেন, নাও আসতে পারেন।”

“আমাকে বলুন উনি আসবেন, নাকি আসবেন না?” – রাণী জিজ্ঞাসা করলেন।
“আমি জানি না। আমি আসার সময় দেখেছি তিনি এক পা মাটিতে রেখেছেন, অন্য পা তার বাহনে।”
সবাই রাজার জন্য অপেক্ষা করছে। তিনি পরের দিন এসে রাণীকে বললেন: “জ্ঞানী মামাদ কখনো মিথ্যা বলেননি, গতকাল আপনার কাছে মিথ্যা বলেছিলেন।” কিন্তু রাণী মামাদের কথাগুলো সম্পর্কে রাজাকে বলেন ।  রাজা বুঝতে পেরেছিলেন যে বুদ্ধিমান মানুষটি কখনও মিথ্যা বলেন না, এবং কেবল তাই বলেন যা তিনি নিজের চোখে দেখেন।

Leave a Reply